অসমাপ্ত এন্ডিং ভালবাসার গল্প

 হ্যাপি এন্ডিং

হ্যাপি এন্ডিং ভালবাসার গল্প

লেখকঃ শাওন
চরিত্রঃ হিমু ও জারা। (ছদ্মনাম)
বিঃ দ্রঃ ব্যাক্তিগত সমস্যা থাকার কারনে, চরিত্রের আসল নাম গল্পে বলা হয়নি।
যাইহোক,

মূল গল্প পড়ুন..

হিমু ছেলেটার সাথে জারা মেয়েটার প্রথম পরিচয় হয়, হিমুর SSC বিদায় অনুষ্ঠানে, জারা তখন ক্লাস সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী, আর হিমু SSC পরিক্ষার্থী।
হিমুর বান্ধবী সুমাইরার কাজিন জারা, জারা অন্য স্কুলে পড়াশুনা করতো, আর জারার কাজিন সুমাইরা হিমুদের স্কুলে পড়ালেখা করতো তাই, হিমুদের SSC বিদায় অনুষ্ঠানে জারা সুমাইরার সাথে বেড়াতে এসেছিল, বলতে পারেন তখন থেকে হিমু আর জারার পরিচয়।
বলে রাখা ভালো, (হিমু তখন রিলেশনে জড়িয়ে ছিল অন্য মেয়ের সাথে) তাই হয়তো জারার কথা হিমুর মনেই পড়ে নি?
কিন্তু, জারা মাঝে মধ্যে ওর কাজিন সুমাইরার কাছ থেকে হিমুর খোঁজখবর নিতো। কিন্তু কখনো, সুমাইরা হিমুকে সেইসব কথা বলেনি, যাইহোক, হিমুদের পরিক্ষা শেষ হলো, সুমাইরা, হিমু ও তাদের সব ফ্রেন্ড যে যার মতো আলাদা হয়ে গেলো, হিমুর পরিক্ষার পর পরই হিমুর রিলেশনটাও ব্রেকআপ হয়ে যায়, ব্রেকআপের পর, প্রেম ভালবাসার প্রতি হিমুর একটা ঘৃনা জন্ম নেয় বিদায়, আর কোন রিলেশনে যায় নি হিমু।
তারপর হিমুর রেজাল্ট বের হয়, ভালো রেজাল্ট করেছে বিদায়, ভালো কলেজে ভর্তি হয়, সে পড়ালেখা, আর ইন্টারনেট নিয়েই ভালোভাবে দিনযাপন করেছিল।
যাইহোক,
জারা আর হিমুর মধ্যে প্রায় ৩ থেকে সাড়ে ৩ বছর কেঁটে গেছে, ওদের দেখা বা কথা কিছুই হয় নি? জারা মেয়েটা এ বছর এখন SSC Exam দিয়েছে, হঠাৎ একদিন হিমুকে একটা মেয়ে ফেইসবুকে রিকুয়েষ্ট দেয়, হিমু এক্সেপ্ট করে নেয়, এক্সেপ্ট করার পর, জারা হিমুর সাথে কথা বলে, কথাগুলো এই রকম ছিলো,
জারাঃ হ্যালো, আমি তোমাকে চিনি।
হিমুঃ আপনি কে?
জারাঃ আমি সুমাইরার কাজিন, তোমাকে ফেইসবুকে অনেক খুঁজেছি, কিন্তু পাই নি, আজ হঠাৎ তোমার ছবি দেখেই আমি তোমাকে চিনেছি।
হিমুঃ প্রথমে জারাকে চিনতে পারে নাই, কিন্তু জারার পরিচয় পাওয়ার পর চিনতে পেরেছে।
যাইহোক, এই ভাবে ওদের কথা বার্তা ফেইসবুকের মাধ্যমে হতে থাকে, জারার সাথে ওর ফেইসবুকে প্রথম চ্যাট হয়েছিল ০৯-০৩-২০১৯ রোজ শনিবারে..
ওদের প্রতিদিনই কম বেশি চ্যাট হতো, জারা একটু পাগলী টাইপের মেয়ে ছিল বিদায়, হিমুকে খুব তাড়াতাড়ি ইমপ্রেস করে ফেলেছে, হিমু মনে মনে কখন যে জারাকে ভালবেসে ফেলেছে তা সে নিজেই জানে না, হিমুর ভালবাসার প্রতি যে ঘৃনা ছিল তা কখন যে জারার ভালবাসায় আবার পরিনত হয়েছে তা হিমু নিজেই জানে না। জারাকে হিমু ভালবেসে ফেলেছে, সে কথা জারাকে বলবে কি বলবে না, সেটা চিন্তা করে, অবশেষে, হিমু ওদের কথা বলার ৬দিনের মধ্যে জারাকে প্রপোজ করে, জারা প্রথমে রাজি হয় নি, হেঁসেছিল, আর বলেছিলো, ওর রাগ ও হচ্ছে না আবার কষ্টও হচ্ছে না, আবার বলেছে ওর আম্মুর সাথে ও ওয়াদাভূক্ত, ও চাইলেও কখনো প্রেমে জড়াতে পারবে না।

হিমু অনেক অবাক হয়েছিল, কারন জারা যেইভাবে হিমুর সাথে চ্যাট করতো, মনে হতো যেন ওরা প্রেমিক প্রেমিকা। হিমুর চিন্তা ভাবনা ভূল ছিলো, হিমুকে সরাসরি না বলে দেয়ায় হিমু কষ্ট পেলো আর নিজেকে দোষী ভাবতে লাগলো, তাই অভিমানে ২দিন ফেইসবুকে আসে নাই, শেষ পর্যন্ত আর সহ্য করতে না পেরে হিমু অনলাইনে আবার আসে, এবং আবারও জারার সাথে চ্যাট করে নিয়মিত, এইভাবে ২/৩দিন যাওয়ার পর হিমু আবারও জারাকে বলে যে জারাকে হিমু সত্যিকারের ভালবাসে, জারা হয়তো ভালবাসার অভিনয় করে বা হিমুকে কষ্ট না দেওয়ার উদ্দেশ্যে হিমুকে বলে দেয় জারাও হিমুকে ভালোবাসে, কিন্তু জারার এই ভালবাসার অনুভূতি হিমু অনুভব করতে পারে না, কারন জারা হিমুকে ভালবাসে নাই, হয়তো হিমুর জোরাজোরিতে জারা বাদ্য হয়ে রিলেশন করতে আগ্রহী হয়।
যাইহোক, তাদের রিলেশন শুরু হয় ২১ মার্চ।

রিলেশনের পর, জারার মধ্যে অনেক পরিবর্তন দেখা দেয়, হিমু জারাকে মেসেজ দিলে, রিপ্লাই দেয় না, যদি ও দেয় তাও অনেক দেরি করে, যা হিমুর একদম ভালো লাগতো না, হিমু জানে, জারা হিমুকে ভালবাসে নাই, কিন্তু কেন জারা অভিনয় করলো?
কেনো আবার হিমু কষ্ট পেলো? এটাই ভাবতো হিমু। যাইহোক, ওদের এই রকম রিলেশনের মধ্যে, ২দিনের মাথায়, জারা হিমুকে বলে, আর সে হিমুর সাথে কথা বলতে পারবে না, ওর ভাইয়া নাকি ওর আর হিমুর সব চ্যাট দেখে ফেলছে, ওর মোবাইল ও নাকি ওর ভাইয়া নিয়ে নিছে, আর জারার শরীরে ও নাকি হাত তুলছে, হিমু কথাগুলা শুনে খুব কষ্ট পেয়েছে, কিন্তু কিছুই বলে নি, শুধু শুনেই গেছে, শেষ কথা হিমু বলেছিল, তুমি কি আমার সাথে যোগাযোগ রাখবে না?
আমায় ভূলে যাবে? (জারা কোন রিপ্লাই দেয় নাই )
হিমু আবার বলছে,
অকে, তুমি ভালো থেকো, তোমার ভালো আমি চাই, তুমি যদি আমার সাথে কথা না বলে, সুখি থাকতে পারো তাইলে তুমি ভালো থেকো। নিজের খেয়াল রেখো বলে শেষ মেসেজ দেয় হিমু, কিন্তু জারা তখনও কোন রিপ্লাই দেয় নাই, জারার আইডি, ১দিন পর ডিএক্টিবেট করে নেয়। আর এখানেই শেষ হয় ওদের শুরু হতে না হতেই শেষ সম্পর্ক টা।

এখন আপনাদের কাছে প্রশ্ন জারা কি সত্যি হিমুকে ভালবেসে ছিল?
যদি ভালবাসতো তাইলে কি এতো নিখুঁত অভিনয় করতে পারতো?
আমারও জানা নেই সে কথা।


Post a Comment

0 Comments