প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন 

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন ২০১৯

বাংলা–সাহিত্য
১) কপালকুণ্ডলা(১৮৬৬) যে প্রকৃতির রচনা?__রোমান্সধর্মী উপন্যাস
(নায়ক নবকুমার ও কপালকুণ্ডলা)
২) তুমি অধম তাই বলে আমি উত্তম হইবো না কেন?
__বঙ্কিমচন্দ্রের কপালকুণ্ডলা উপন্যাসের উক্তি।
৩) স্বাধীনতা, এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো? কবিতাটির রচয়িতা কে?
__নির্মেলেন্দু গুণ
৪) আধ্যাত্মিকা”গ্রন্থের লেখক কে?
__প্যারিচাঁদ মিত্র
৫) চোখের বালি (১৯০৩) উপন্যাসটির লেখক কে?
__রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
৬) `তুমি আসবে বলে হে স্বাধীনতা” কার কবিতা?
__শামসুর রাহমানের
৭) শূন্যপুরাণ” রচনা করেন কে?
__রামাই পণ্ডিত
৮) সুকান্ত ভট্টাচার্য কর্তৃক সম্পাদিত পত্রিকার নাম কী?
__আকাল
৯) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের “ছিন্নপত্রের” অধিকাংশ পত্র কাকে উদ্দশ্য করে লেখা?
__ইন্দিরা দেবীকে।
১০) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের “ভানুসিংহ” ঠাকুরের পদাবলীর ভাষা কী?
__ব্রজবুলি
১১) সর্বপ্রথম বিধবা বিবাহের পক্ষ্যে আন্দোলন করেন কে?
__ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
১২) বর্ণপরিচয়”এর রচয়িতা কে?
__ঈশ্বচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
১৩) অশোক সৈয়দ”কার ছন্মনাম?
__আব্দুল মান্নান সৈয়দ এর।
১৪) গাড়ি চলে না,চলে না, চলে না রে” গানটির গীতিকার কে?
__শাহ্ আব্দুল করিমের।
১৫) মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি” গানটির রচয়িতা কে?
__গোবিন্দ হালদার
১৬) সনেট এর কয়টি অংশ?
__২টি (ভাবের প্রবর্তনা ও পরিণতি)
১৭) বাংলা সাহিত্যে অন্যতম বিশিষ্ট পত্রিকা “কল্লোল” কত সালে প্রকাশিত হয়?
__১৯২৩ সালে।

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন 

১৮) তত্ত্ববোধিনী পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?
__অক্ষয়কুমার দত্ত
১৯) পূর্বাশা পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?
__সঞ্জয় ভট্টাচার্য
# ____ব্যাকরণ
২০) ব্যাকরণ ভাষাকে কী করে?
___বিশ্লেষণ করে।
২১) স্ত্রী<ইস্ত্রী হয়েছে কোন প্রকিয়ায়?
__আদি স্বরাগম
২২) অনাদর শব্দটির ব্যাসবাক্য কী?
__ন আদর
২৩) মা ছিল না বলে কেউ তার চুল বেঁধে দেয় নি”এটি কি
ধরনের বাক্য?
__সরল বাক্য
২৪)’ড়, ঢ়’ কী জাতীয় ধ্বনি?
__তাড়নজাত
২৫) ণ-ত্ব,ষ-ত্ব বিধান কোন শব্দে হয়?
__তৎসম বা সংস্কৃত শব্দে।
২৬) বাংলা ব্যাকরণের কোন অংশে “সন্ধি” আলোচনা করা হয়?
__ধ্বনিতত্ত্বে
২৭) পিত্রালয়” এর সন্ধি বিচ্ছেদ কী?
__পিতৃ+আলয়
২৮) পরস্পর” কোন ধরনের সন্ধি?
__নিপাতনে সিদ্ধ
২৯)সম্+চয়” এটা কোন ধরনের সন্ধি?
__ব্যঞ্জন সন্ধি
৩০) পরীক্ষা” এর সন্ধি বিচ্ছেদ কী?
__ পরি+ঈক্ষা
৩১) কোন প্রত্যয়যুক্ত শব্দে মূর্ধন্য-ষ হয় না?
__সাৎ
৩২) সমাসের রীতি কোন ভাষা থেকে এসেছে? __সংস্কৃত ভাষা থেকে।
৩৩) আলোছায়া” পদটি কোন সমাস? __দ্বন্দ্ব সমাস (আলো ও ছায়া)
৩৪) প্রভাতে উঠিল রবি লোহিত বরণ” এখানে ‘প্রভাতে’ কোন কারকে কোন বিভক্তি ?
__অধিকরণে ৭মী

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

৩৫) ”ষোলকলা’ শব্দের অর্থ কী? __সম্পূর্ণ
৩৬) ”ফুটিফাটা” বাগধারার অর্থ কী? __চৌচির
৩৭) যা দমন করা যায় না” এক কথায় কী? __অদম্য
৩৮) যে রোগ নির্ণয় করতে হাতরে মরে? এক কথায় কী? __হাতুড়ে
৩৯) বিশেষ খ্যাতি আছে যার” এক কথায়?__বিখ্যাত।
৪০) প্রাচ্য এর বিপরীত কী? __প্রতীচ্য
৪১)নির্মল শব্দের বিপরীত কী?__পঙ্কিল
৪২) ”Pragmatic”এর সঠিক অর্থ কী? __বাস্তবধর্মী
৪৩) Justification for” এর সঠিক অনুবাদ __সমর্থন।
# বাংলাদেশ_বিষয়াবলি_ও_ইংরেজি
৪৪) খাসিয়া গ্রামগুলো কী নামে পরিচিত? __পুঞ্জি
৪৫) বর্ণালি ও শুভ্রা” কিসের জাত? __উন্নত জাতের ভুট্টা
৪৬) বাংলাদেশের ডাক বিভাগে ডাক টাকা চালু হয় কবে?
__১১ডিসেম্বর ২০১৭ সালে।
৪৭) মুজিবনগর কোথায় অবস্থিত? __মেহেরপুর জেলায়।
৪৮) ৬দফা দাবী কোথায় উত্থাপিত হয়? __লাহোরে।
৪৯) ব্রিটিশ ভারতের শেষ ভাইসরয় এর নাম কী? __লর্ড মাউন্টব্যাটেন।
৫০) মুক্তিযুদ্ধের সময় যশোর জেলা কত নং সেক্টরের অধীনে ছিল? __৮নং সেক্টরে।
৫১) বাংলাদেশ জাতি সংঘের কততম সদস্য? __১৩৬তম
৫২) বাংলাদেশের পরমাণু শক্তি কমিশন কত সালে গঠিত হয়? __১৯৭৩ সালে।
৫৩) মৌর্য ও গুপ্ত বংশের রাজধানী কোথায় ছিল? __পাটলিপুত্রে
৫৪) বাংলার প্রথম স্বাধীন রাজা কে? __রাজা শশাঙ্ক
৫৫) প্রথম মুসলিম বিজেতা কে? __মুহম্মদ বিন কাশিম
৫৬) শাহ্ ই বাঙ্গালা” কার উপাধি? __শামসুদ্দিন ইলিয়াস শাহ
৫৭) কবে ইউনেস্কো ২১শে ফব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়? __১৭ নভেম্বর ১৯৯৯ সালে।
৫৮) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করেন কে?
__অধ্যাপক এম.ইউসুফ আলী
৫৯) স্বাধীন বাংলাদেশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কবে স্বীকৃতি দেয়? __৪এপ্রিল ১৯৭২ সালে।
৬০) রাজবংশী নামক ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোথায় বাস করে? __রংপুর ও শেরপুরে।
৬১) বাংলাদেশে পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা হয়েছে কতটি? __৭টি

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

৬২) বর্তমানে মোট উপজেলা কতটি? __৪৯৩টি
৬৩) ”Product of the year-2018 কোন পণ্যটি? __ওষুধ
★৬৪) বাংলাদেশে প্রথম রেললাইন স্থাপন করা হয় কোথায়? __দর্শনা-জগতি (কুষ্টিয়া)
৬৫) সংবিধান দিবস কত তারিখে ? __৪ নভেম্বরে।
৬৬) সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে “চলা ফেরার স্বাধীনতার “কথা বলা আছে? __৩৬ নং অনুচ্ছেদে।
# ____English____
৬৭) A person devoid of knowledge” __Ignorant
৬৮) The book “Ivanhoe”is written by? __Sir Walter Scott
৬৯) The poem” Solitary Reaper” is written by? __William Wordsworth
৭০) The man lapsed___past memories? _into
৭১) Divide the money__the two boys? __between
৭২) Kamal is good__cricket. __at
৭৩) shall do it__pleasure. __with
৭৪) I am fatigued__wide travelling. __by
৭৫) He is used to__hard. __working
৭৬) The committee__divided in their opinion. __were
৭৭) Nine thousand taka__a good amount of money. __is
৭৮) The word “substantiate” is a? __verb
৭৯) The word “decision” is a ? __noun
৮০) The word “wonderful” is a/an ?
__adjective
# English translation of the Bengali sentence.
৮১) অপমানের চেয়ে মৃত্যু শ্রেয়…
__Death is preferable to dishonour.
৮২) শিশুটি হাসতে হিসতে মায়ের নিকট এলো।
__The baby came to its mother laughing.
→The passive from of___
৮৩) Do you know the man? ’is
__Is the man known to you.
৮৪) “Let me do the work” is
__Let the work be done by me.
→The indirect narration of the sentence.
৮৫) He said, Good morning sir” is
__He respectfully wished good morning to the person spoken to.
৮৬) Akbar said, What a fine picture it is!
__Akbar exclaimed that it was a very fine picture.
Completed by__Ramjan
Idioms and Phrases
_________________________________
৮৭)→Block head___Foolish
৮৮)→By and large___Mostly
৮৯)→Fits and starts___irregularly
৯০)→White colour job___A job without manual labour.
Correct Spelling
_________________________________
৯১)→Millennium
৯২)→Caterpillar
৯৩)→Dysentery
৯৪)→Misspell
৯৫)→Bureaucrat
৯৬)→Tuition
৯৭)→Humorous
৯৮)→Curruption
Antonyms
_________________

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

________________
৯৯)→Adulterate__Pure
১০০)→Altruism__Meanness
সাধারণ জ্ঞান : আন্তর্জাতিক
গোয়েন্দা সংস্থা :
১০১। ফেয়ারফ্যাক্স- যুক্তরাষ্ট্র
১০২। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড- যুক্তরাজ্য
১০৩। মুখবরাত- মিশর
১০৪। মোসাদ- ইসরায়েল
১০৫। আমান- ইসরায়েল
১০৬। সাভাক- ইসরায়েল
১০৭। র ( RAW) – ভারত
১০৮। আইএসআই- পাকিস্তান
বিমানসংস্থার নাম:
১০৯। ইন্দোনেশিয়া – গারুদা
১১০। জার্মানি – লুফথানসা
১১১। রাশিয়া – এরোফ্লট
১১২। ট্রান্স ওয়ার্ল্ড এয়ার লাইনস- যুক্তরাষ্ট্র
বিমানবন্দর :
১১৩। হিথ্রো বিমানবন্দর – লন্ডন
১১৪। সুবর্ণভূমি বিমানবন্দর – নেপাল
দিবস:
১১৫। বিশ্ব নারী দিবস- ৮ মার্চ
১১৬। বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস- ৭ এপ্রিল
১১৭। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী দিবস- ২৯ মে
১১৮। বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস- ৩১মে
১১৯। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস- ১১ জুলাই
১২০। বিশ্ব আদিবাসী দিবস – ৯ আগস্ট
১২১। বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস – ৮ সেপ্টেম্বর
১২২। আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস – ১৫ সেপ্টেম্বর
১২৩। বিশ্ব অহিংস দিবস – ২ অক্টোবর
১২৪৷ বিশ্ব খাদ্য দিবস – ১৬ অক্টোবর
১২৫। বিশ্ব এইডস দিবস – ১ ডিসেম্বর
১২৬। বিশ্ব দুর্নীতি বিরোধী দিবস – ৯ ডিসেম্বর
১২৭। বিশ্ব মানবাধিকার দিবস- ১০ ডিসেম্বর
১২৮) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি
১২৯) Executive – এর পরিভাষা – নির্বাহী
১৩০) পর্যালোচনা এর সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি+আলোচনা
১৩১) মেধাবী শব্দের প্রকৃতি প্রত্যয় – মেধা+বিণ
১৩২) গোঁফ খেজুরে অর্থ – নিতান্ত অলস
১৩৩) অন্ধজনে দেহ আলো এখানে অন্ধজনে কারক বিভক্তি – সম্প্রদানে ৭মী
১৩৪) পৃথিবী শব্দের প্রতিশব্দ নয় – বারি
১৩৫) কচ্ছপের কামড় বাগধারার অর্থ – নাছোড় বান্দা
১৩৬) লাঠা লাঠি – বহুব্রীহি সমাস
১৩৭) ভুল প্রতিশব্দ – ইচ্ছা- পরশ্রীকাতরতা
১৩৮) ঠাকুরমার ঝুলি কি জাতীয় সংকলন – রুপকথা
১৩৯) সৌম্য এর বিপরীত – উগ্র
১৪০) জীবন্মৃত এর ব্যাসবাক্য – জীবিত থেকেও যে মৃত
নদী
১৪১। পৃথিবীর বৃহত্তম নদী- আমাজন
১৪২। এশিয়ার দীর্ঘতম নদী- ইয়াংসিকিয়াং
১৪৩। হোয়াংহো নদীর স্থপত্তিস্থল – কুনলুন পর্বত
১৪৪। চীনের দুঃখ বলে পরিচিত- কুনলুন পর্বত
১৪৫। ইউরোপের সবচেয়ে বড় নদী- ভলগা
১৪৬। ব্ল্যাকফরেস্ট অবস্থিত – জার্মানি
১৪৭। শাত-ইল-আরব হলো- ট্রাইগ্রিস ও ইউফ্রেটিস বদরী মিলিত প্রবাহ
১৪৮। পৃথিবীর কোন নদীতে মাছ হয় না?- জর্ডান
১৪৯। পশ্চিম তীর অবস্থিত – জর্ডান
জলপ্রপাত :
১৫০। বিশ্বের উচ্চতম জলপ্রপাত – অ্যাঞ্জেলস
১৫১। নায়াগ্রা জলপ্রপাত অবস্থিত – আমেরিকা-কানাডা
১৫২। বিশ্বের বৃহত্তম জলপ্রপাত – ভিক্টোরিয়া
ভৌগলিক উপনাম:
১৫৩। বিশ্বের রাজধানী – নিউইয়র্ক
১৫৪। পৃথিবীর কসাইখানা – শিকাগো
১৫৫। ভূ-স্বর্গ– কাশ্মীর
১৫৬। শ্বেতহস্তীর দেশ – থাইল্যান্ড
১৫৭। হাজার হ্রদের দেশ – ফিনল্যান্ড
১৫৮। হাজার দ্বীপের দেশ – ইন্দোনেশিয়া
১৫৯। ম্যাপল পাতার দেশ – কানাডা
১৬০। নীরব খনির দেশ – বাংলাদেশ
১৬১। সমুদ্রের বধূ- ব্রিটেন
১৬২। সাত পাহাড়ের শহর– রোম
১৬৩। সোনালী তোরণের শহর– সানফ্রান্সিসকো
১৬৪। সংস্কৃতির শহর- প্যারিস
১৬৫। বিগ আপেল – নিউইয়র্ক
১৬৬। উত্তরের ভেনিস — স্টকহোম
১৬৭। প্রাচ্যের ভেনিস- ব্যাংকক
১৬৮। ইউরোপের রণক্ষেত্র— বেলজিয়াম
১৬৯। পুষ্পমণ্ডিত বৃক্ষের শহর– হারারে
১৭০। সাত পাহাড়ের দেশ – রোম
ভাষা:

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

১৭১। চীন- মান্দারিন (সবচেয়ে বেশি লোক এ ভাষায় কথা বলে)
১৭২। আর্জেন্টিনা, চিলি, মেক্সিকো, স্পেন- স্পেনিশ
১৭৩। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা, ঘানা, জিম্বাবুয়ে, উগান্ডা, নাইজেরিয়া- ইংরেজি
১৭৪। ব্রাজিল, পর্তুগাল – পর্তুগিজ
১৭৫। জার্মানি, অস্ট্রিয়া– জার্মান
১৭৬। ফ্রান্স, সেনেগাল, বেলজিয়াম, কঙ্গো, মাদাগাস্কার – ফ্রেঞ্চ
১৭৭। অ্যান্ডোরা, স্পেন – ক্যাটালান
১৭৮। আফগানিস্তান- পশতু
১৭৯। ভুটান- দোজাংখা
১৮০। কেনিয়া, তানজানিয়া- সোয়াহিলি
১৮১। মালদ্বীপ – দিভেহী
১৮২। শ্রীলঙ্কা – সিংহলি
১৮৩। ইসরায়েল – হিব্রু
১৮৪। মালয়েশিয়া – মালয়
১৮৫। কম্বোডিয়া – খেমার
১৮৬। ঘানা- আকান
সমুদ্রবন্দরঃ
১৮৭। আকাবা- জর্ডান
১৮৮। বন্দর আব্বাস – ইরান
১৮৯। এডেন– ইয়েমেন
১৯০। হাইফা- ইসরায়েল
১৯১। ডানজিগ– পোল্যান্ড
১৯২। আন্টওয়ার্প- বেলজিয়াম
১৯৩। পোর্ট সৈয়দ – মিশর
১৯৪। ক্যাসাব্লান্কা- মরক্কো
১৯৫। বেনগাজী- লিবিয়া
১৯৬। উমকাসর- ইরাক
১৯৭। ইসকানদারুন- তুরস্ক
মুদ্রা :
১৯৮। গুলট্রাম- ভুটান
১৯৯। কিয়াট- মায়ানমার
২০০। রিংগিত- মালয়েশিয়া
২০১। ইসরায়েল – শেকেল
২০২। জলোটি- পোল্যান্ড
২০৩। সেডি- ঘানা
২০৪। ডং- ভিয়েতনাম
আইনসভা :
২০৫। ইসরায়েল – নেসেট
২০৬। জাপান – ডায়েট
২০৭। আফগানিস্তান – লয়া জিরগা
২০৮। যুক্তরাষ্ট্র – কংগ্রেস
২০৯। রাশিয়া – স্টেট ডুমা
২১০। পাকিস্তান – মজলিশ
২১১। নরওয়ে – স্টরটিং
২১২। ডেনমার্ক – ফোকেটিং
২১৩। জার্মানি – বুন্টেসট্যাগ
হ্রদ :
২১৫। আয়তনে বিশ্বের বৃহত্তম হ্রদ- কাস্পিয়ান সাগর
২১৬। বিশ্বের বৃহত্তম সুপেয় পানির হ্রদ- সুপিরিয়র হ্রদ
২১৭। গ্রেট লেকস কয়টি?- ৫ টি
২১৮। তাঞ্জানিয়া ও উগান্ডার আন্তর্জাতিক সীমানা হিসেবে পরিচিত – ভিক্টোরিয়া হ্রদ
২১৯। বিশ্বের গভীরতম হ্রদ- বৈকাল
২২০। পৃথিবীর সর্বাধিক লবণাক্ত পানির হ্রদ- আসাল হ্রদ
২২১। লবণ সাগরের আসল নাম- মৃত সাগর
২২২। পৃথিবীর যে সাগরে মানুষ অনায়াসে গা ভাসিয়ে থাকতে পারে- মৃতসাগর/ লবণ সাগর
প্রণালি :

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

২২৩। এশিয়া থেকে আমেরিকাকে পৃথক করেছে- বেরিং প্রণালী
২২৪। ভারত হতে শ্রীলঙ্কাকে পৃথক করেছে- পক প্রণালি
২২৫। পারস্য উপসাগর ও ওমান উপসাগর সংযুক্ত করেছে- হরমুজ প্রণালি
২২৬। এডেন সাগর ও লোহিত সাগরকে সংযুক্ত করেছে- বাব-এল-মান্দেব
২২৭। এশিয়া থেকে ইউরোপকে পৃথক করেছে- বসফরাস প্রণালি / দার্দানেলিস প্রণালি
২২৮। ইউরোপ হতে আফ্রিকাকে পৃথক করেছে- জিব্রাল্টার প্রণালি
২২৯। ফ্রান্স ও ব্রিটেন পৃথক করেছে- ইংলিশ চ্যানেল
২৩০। ব্রজেন দাস- একজন বাঙ্গালি সাঁতারু
২৩১। পৃথিবীর বৃহত্তম খাল- সুয়েজ খাল
২৩২। সুয়েজ খাল অবস্থিত – মিশর
২৩৩। সুয়েজ খাল চালু হয়- ১৮৬৯ সালে
২৩৪। সুয়েজ খাল সংযুক্ত করেছে- ভূমধ্যসাগর ও লোহিত সাগর
২৩৫। পানামা খাল সংযুক্ত করেছে- আটলান্টিক মহাসাগর ও প্রশান্ত মহাসাগর
নদী:
২৩৬। পৃথিবীর দীর্ঘতম নদী- নীল নদ
২৩৭। নীলনদ প্রবাহিত হয়েছে- ১১ টি
২৩৮। কায়রো কোন নদীর তীরে অবস্থিত? – নীল
২৩৯। পৃথিবীর প্রশস্ততম নদী- আমাজন
২৪০। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পানি প্রবাহিত হয়- আমাজন
নতুন ও পুরাতন নাম:
১। জিম্বাবুয়ে – দক্ষিণ রোডেশিয়া
২। বারকিনা ফাসো- আপার ভোল্টা
৩। কঙ্গো প্রজাতন্ত্র – জায়ারে
৪। ঘানা- গোল্ড কোস্ট
৫। জাম্বিয়া- উত্তর রোডেশিয়া
৬। নেদারল্যান্ড – হল্যাণ্ড
৭। চীন- ক্যাথে
৮। জার্মানি- ডয়েচেল্যান্ড
পর্বত:

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

১। আন্দিজ পর্বতমালা- দক্ষিণ আমেরিকা
২। পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত- মাউন্ট এভারেস্ট
৩। এডামস পিক- শ্রীলঙ্কা
৪। তোরাবোরা গুহা/ পাহাড় – আফগানিস্তান
৫। কিনাবালু- মালয়েশিয়া
উপত্যকা :
১। সোয়াত উপত্যকা – পাকিস্তান
২। মৃত্যু উপত্যকা – আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র
মরুভূমি :
১। সাহারা মরুভূমি – পৃথিবীর সবচেয়ে মরুভূমি। একে ” আফ্রিকার দুঃখ ” বলা হয়।
২। গোবি মরুভূমি – ( মঙ্গোলিয়া-চীন)
৩। কালাহারি মরুভূমি – আফ্রিকা
৪। তাকলামাকান- চীন
৫। থর- (ভারত-পাকিস্তান)
৬। চিহুয়াহুয়ান- (মেক্সিকো – যুক্তরাষ্ট্র)
সাগর তীরবর্তী রাষ্ট্র :
১। ভূমধ্যসাগর – মিশর, লিবিয়া, আলজেরিয়া, তিউনেসিয়া, মরক্কো, স্পেন, ফ্রান্স, ইতালি, স্লোভেনিয়া, ক্রোয়েশিয়া, বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা, মন্টেনিগ্রো, আলবেনিয়া, গ্রিস, তুরস্ক, সাইপ্রাস, সিরিয়া, লেবানন, ইসরায়েল
স্থলবেষ্টিত রাষ্ট্র :
১। বিশ্বের মোট স্থল বেষ্টিত দেশের সংখ্যা – ৪৫টি
২। এশিয়া- নেপাল, ভুটান, আফগানিস্তান, লাওস, মঙ্গোলিয়া, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান
৩। ইউরোপ – হাঙ্গেরি, সুইজারল্যান্ড, কসোভো
৪। আফ্রিকা – ইথিওপিয়া, জিম্বাবুয়ে, জিম্বাবুয়ে, দক্ষিণ সুদান
৫। দক্ষিণ আমেরিকা- প্যারাগুয়ে, বলিভিয়া
ছিদ্রায়িত রাষ্ট্র :
১। ২টি; যথা- ইটালি, দক্ষিণ আফ্রিকা
রাজধানীর নামঃ
১। মঙ্গোলিয়া- উলানবাটোর
২। উত্তর কোরিয়া- পিয়ংইয়ং
৩। মায়ানমার- নাইপিদো
৪। কম্বোডিয়া – নমপেন
৫। লাওস- ভিয়েনতিয়েন
৬। মালয়েশিয়া – কুয়ালালামপুর
৭। শ্রীলঙ্কা – কলম্বো
৮। লেবানন – বৈরুত
৯। সিরিয়া- দামেস্ক
১০। তুরস্ক – আঙ্কারা
১১। কাতার- দোহা
১২। জর্ডান- আম্মান
১৩। কাজাখস্তান – আস্তানা
১৪। কিরগিজস্তান – বিশকেক
১৫। তুর্কমেনিস্তান – আশখাবাদ
১৬। উজবেকিস্তান – তাসখন্দ
১৭। তাজিকিস্তান – দুশানবে
১৮। ফিনল্যান্ড – হেলসিংকি
১৯। ডেনমার্ক – কোপেনহেগেন
২০। ইউক্রেন – কিয়েভ
২১। বেলজিয়াম – ব্রাসেলস
২২। কসোভো- প্রিস্টিনা
২৩। নেদারল্যান্ড- আমস্টারডাম
২৪। পোল্যান্ড- ওয়ারস
২৫৷ এস্তোনিয়া- তাল্লিন
২৬। লাটভিয়া- রিগা
২৭। দক্ষিণ সুদান- জুবা

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

২৮। বুরুন্ডি- বুজুমবুরা
২৯। মাদাগাস্কার – আনতানানারিবো
৩০। উগান্ডা – কাম্পালা
৩১। গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র – কিনসাসা
৩২। সেনেগাল- ডাকার
৩৩। দক্ষিণ আফ্রিকা – কেপটাউন
৩৪। বারকিনা ফাসো- ওয়াগাডুগু
৩৫। মৌরিতানিয়া- নৌয়াকচট
৩৬। ইথিওপিয়া – আদ্দিস আবাবা
৩৭। হন্ডুরাস – তিগুচিগালপা
৩৮। চিলি- সান্টিয়াগো
৩৯। আর্জেন্টিনা – বুয়েন্স আয়ারস
৪০। পেরু- লিমা
205 দ্বীপ :
১। পৃথিবীর বৃহত্তম দ্বীপ – গ্রীণল্যান্ড
২। গ্রীণল্যান্ড দ্বীপটির মালিকানা – ডেনমার্ক
৩। ভৌগোলিকভাবে উত্তর আমেরিকার কিন্তু রাজনৈতিক ভাবে ইউরোপের- গ্রীণল্যান্ড
৪। পৃথিবীর সর্বাধিক দ্বীপরাষ্ট্র – ইন্দোনেশিয়া
৫। কুড়িল দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে- রাশিয়া ও জাপান
৬। শাখালিন দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে- রাশিয়া ও জাপান
৭। সেনকাকু নিয়ে বিরোধ রয়েছে- চীন ও জাপান
৮। স্প্রাটলি দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে – চীন ও ভিয়েতনাম
৯। আবু মুসা দ্বীপ – ইরান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত
১০। পেরেজিল দ্বীপ – মরক্কো ও স্পেন
১১। ফকল্যান্ড – আর্জেন্টিনা ও ব্রিটেন
১২। চীনে ‘দিয়াওয়াও’ নামে পরিচিত – সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ
১৩। জাফনা দ্বীপ অবস্থিত – শ্রীলঙ্কা
১৪। আফ্রিকা ও এশিয়ার মধ্যে ভূমি সেতুর কাজ করে- সিনাই উপত্যকা
১) ভাষার মূল উপাদান – ধ্বনি
২) আভরণ শব্দের অর্থ – অলংকার
৩) মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন এখানে কিংবা – বিয়োজক অব্যয়
৪) ঢাকের কাঠি বাগধারার অর্থ – তোষামুদে
৫) বাবুর্চি – তুর্কি শব্দ
৬) শুদ্ধ বানান – মূর্ধন্য
৭) চীনা শব্দ – চা, চিনি
৮) ভাষায় সর্বনাম ব্যবহারের উদ্দেশ্য – বিশেষ্যের পুনরাবৃত্তি দূর করা
৯) সন্ধির প্রধান সুবিধা – উচ্চারণে
১০) কর্মভোগ এড়ানো যায় না এখানে কর্ম অর্থ – কৃতকর্ম
১১) তুমি না বলেছিলে আগামীকাল আসবে? এখানে না – প্রশ্নবোধক অর্থে
১২) পাবক শব্দের সমার্থ – অগ্নি
১৩) মৃন্ময়ী যে উপন্যাসের নায়িকা – সমাপ্তি
১৪) তুমি যাও – অনুজ্ঞা
১৫) সঠিক যে টি – পথের দাবী ( উপন্যাস)
১৬) আত্নঘাতি বাঙালী – নীরদচন্দ্র চৌধুরীর গ্রন্থ
১৭) চতুরঙ্গ পত্রিকার সম্পাদক – হুমায়ুন কবির
১৮) রবীন্দ্রনাথের রচনা – চতুরঙ্গ
১৯) আবোল তাবোল কার – সুকুমার রায়
২০) ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান ছিলেন – উইলিয়াম কেরি
২১) প্রত্যয়গতভাবে শুদ্ধ – উৎকর্ষতা
২২) অমিত্রাক্ষর ছন্দের বৈশিষ্ট্য – অন্তমিল থাকেনা
২৩) চাঁদ – তদ্ভব শব্দ
২৪) পুণ্যে মতি হোক এখানে পুণ্যে – বিশেষ্য
২৫) তার বয়স বেড়েছে কিন্তু বুদ্ধি বাড়েনি – যৌগিক বাক্য
২৬) আনারস, চাবি – পর্তুগিজ শব্দ
২৭) শুদ্ধ বানান – নির্নিমেষ
২৮) বাংলা ভাষায় যতি চিহ্নের প্রচলন করেন – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
২৯) সংশয় এর বিপরীত শব্দ – প্রত্যয়
৩০) ইহলোকে যা সামান্য নয় – আলোক সামান্য
৩১) শশী ও কুমুদ চরিত্র দুটি – পুতুল নাচের ইতিকথার
৩২) ভাষায় সাহিত্যের গাম্ভীর্য ও আভিজাত্য প্রকাশ পায় – সাধু ভাষায়
৩৩) রাত্রির সমার্থক নয় – বারিদ
৩৪) ব্রজবুলি হলো – মৈথিলি ভাষার একটি উপভাষা
৩৫) অভিধানে আগে বসবে – চাঁটি শব্দি
৩৬) গাহি সাম্যের গান, ধরণীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান – নজরুলের সাম্যবাদী কবিতার লাইন

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

৩৭) অভিনিবেশ শব্দের অর্থ – মনোযোগ
৩৮) সঠিক বাক্য – আমার কথাই প্রমাণিত হলো
৩৯) সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায় – নিত্যবৃত্ত অতীত
৪০) সাধুরীতির বৈশিষ্ট্য – সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ এক বিশেষ গঠন পদ্ধতি মেনে চলে।
১) ঢাক ঢাক গুড় গুড় বাগধারার অর্থ – গোপন রাখার প্রয়াস
২) কোনটি পরিচ্ছদ – শিমুল
৩) যৌগিক বিশোষণের উদাঃ – পন্ডিত জনোচিত উক্তি
৪) প্রত্যয়ান্ত শব্দ – পিপাসা
৫) কোন ত্রয়ীবানান শুদ্ধ – মুমূর্ষু, সংঘর্ষ, বিমর্ষ
৬) কোনটি অঙ্গ ভূষণ – মেখলা
৭) Transliteration এর পরিভাষা – প্রতিবর্ণীকরন
৮) শেক্সপীয়রের টেমিং অব দি শ্রু বাংলা অনুবাদ করেন – মুনীর চৌধুরী
৯) পদাবলীর রচয়িতা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
১০) এক জাতীয় নয় – তনয়
১১) শামসুর রাহমানের গদ্য গন্থ – স্মৃতির শহর
১২) তুলনাজ্ঞাপক শব্দ – প্রমিত
১৩) লোকটা যে পিছনে লেগেই রয়েছে, কী বিপদ!! এখানে কী – বিরক্তি বোঝায়
১৪) বুদ্ধদেব বসু সম্পাদিত পত্রিকা – কবিতা
১৫) সমার্থক নয় – মরৎ
১৬) The window panes steamed up এর বাংলা – জানালার কাচ ঝাপসা হয়ে গেল
১৭) হাসি ও ব্যঙ্গের নজরুল কাব্য – পুবের হাওয়া
১৮) সমাস গঠিত শব্দ – নরপুঙ্গর ( দ্বন্দ্ব সমাস)
১৯) যৌবন এর বিপরীত শব্দ – জরা
২০) ছেমড়া শব্দটি – সংস্কৃত
২১) দহন কাল উপন্যাস এর জন্য বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার ২০১২ পদক পান – হরিশংকর
জলদাস
২২) জাফর ইকবালের প্রথম প্রকাশিত সায়েন্স ফিকশন – কপোট্রনিক সুখ দুঃখ ( ১৯৭৬)
২৩) চাচা কাহিনীর লেখক – সৈয়দ মুজতবা আলী
২৪) সোনালী কাবিন কাব্যের রচয়িতা – আল মাহমুদ
২৫) তোমাকে পাওয়ার জন্য হে স্বাধীনতা পংক্তিটির রচনা করেন – শামসুর রাহমান
২৬) শুব্দ বানান – মুমূর্ষু
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
১) আপদ এর বিপরীত শব্দ – সম্পদ
২) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যৎ
৩) শান্ত এর বিপরীত শব্দ – অনন্ত
৪) কৃতঘ্ন এর বিপরীত শব্দ – কৃতজ্ঞ
৫) অশুদ্ধ বাক্য – সর্বদা পরিস্কৃত থাকিবে
৬) শুদ্ধ বাক্য – তুমি কি ঢাকা যাবে??
৭) শুদ্ধ বাক্য – রহিমা পাগল হয়ে গেছে
৮) শুদ্ধ বাক্য – বুনো ওল, বাঘা তেতুল
৯) বায়ু শব্দের সমার্থক শব্দ – বাত
১০) চাঁদ এর সমার্থক শব্দ – নিশাপতি
১১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
১২) রাজা শব্দের সমার্থক – নরেন্দ্র
১৩) জল শব্দের সমার্থক শব্দ – অম্বু
১৪) কৌমুদির প্রতিশব্দ নয় – নলিনী
১৫) অরুন এর প্রতিশব্দ নয় – বিজলী
১৬) নিকেতন এর প্রতিশব্দ নয় – তোয়
১৭) রামা এর প্রতিশব্দ নয় – সুত
১৮) শিক্ষককে শ্রদ্ধা কর। এখানে শিক্ষককে – সম্প্রদান ৭ মী বিভক্তি
১৯) পৌরসভা কোন সমাস – ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস
২০) অর্ক এর প্রতিশব্দ নয় – অনিল
২১) কোনটি সঠিক – আপাদমস্তক
২২) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি সমাস
২৩) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যত
২৪) রক্ত করবী – নাটক
২৫) বসুমতী শব্দের সমার্থক – ধরিত্রী
২৬) পরার্থ শব্দের অর্থ – পরোপকার
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) সাত সাগরের মাঝি কাব্য – ফররুখ আহমেদ এর
২৯) বৃষ্টি এর সন্ধি বিচ্ছেদ – বৃষ+তি
৩০) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – বিষের বাঁশী
৩১) গুরুজনে ভক্তিকর এখানে গুরুজনে – কর্মকারক
৩২) বনফুল যার ছদ্মনাম – বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
৩৩) surgeon এর পরিভাষা – শল্য চিকিৎসক
৩৪) হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিবিধ রতন কার কবিতার লাইন – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) ব্যথার দান – কাজী নজরুল রচিত গল্প
৩৬) সংশপ্তক কার – শহীদুল্লাহ কায়সার
৩৭) পর্যালোচনার সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩৮) অম্বর শব্দের অর্থ – আকাশ
৩৯) নিরানব্বইয়ের ধাক্কা – সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি
৪০) শুদ্ধ বানান – পিপীলিকা
৪১) প্রবচন – পুরোনো চাল ভাতে বাড়ে
৪২) দারিদ্রতা শব্দটি অশুদ্ধ – প্রত্যয়জনিত কারনে।
১) কোন বানানটি সঠিক – ভদ্রোচিত
২) উনপাঁজুরে শব্দরে অর্থ – দুর্বল
৩) উত্তম পুরুষের উদাঃ – আমি
৪) দিনের আলো ও সন্ধ্যার আঁধারে মিলন – গোধূলী
৫) যা দীপ্তি পাচ্ছে – দেদীপ্যমান
৬) আকাশ শব্দের সমার্থক নয় – হিমাংশু
৭) দেশী শব্দ – চাল, চুলা
৮) সন্ধি শব্দের বিপরীত শব্দ – বিয়োগ
৯) কোনটির লিঙ্গান্তর হয় না – কবিরাজ
১০) সকল সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন এর শুব্দ রুপ – সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন
১১) বাঁধ্ + অন = বাঁধন কোন শব্দ – কৃদন্ত শব্দ
১২) ধাতু কয় প্রকার – ৩ প্রকার
১৩) রচনাটির উৎকর্ষতা অনস্বীকার্য এর শুব্দ রুপ – রচনাটির উৎকর্ষ অনস্বীকার্য
১৪) দশে মিলে করি কাজ এখানে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি
১৫) স্বরসংগতির উদাহরন – দেশী> দিশী
১৬) পাতায় পাতায় পড়ে নিশির শিশির এখানে পাতায় পাতায় – অধিকরণে ৭মী বিভক্তি
১৭) যে বহু বিষয় জানে – বহুজ্ঞ
১৮) যৌগিক স্বরধ্বনি – ঐ
১৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ নয় – হিমকর
২০) কবর কবিতাটি কোন কাব্যের – রাখালী
২১) আহসান হাবীব এর কাব্যগ্রন্থ – আশার বসতি, ছায়াহরিণ, সারাদুপুর
২২) যাহা দিলাম তাহা উজাড় করিয়া দিলাম। – রবীন্দ্রনাথের হৈমন্তী গল্পের উক্তি
২৩) হাজার বছর ধরে রচনা করেন – জহির রায়হান
২৪) এখানে তোর দাদির কবর ডালিম গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছে দুই নয়নের জলে।
এর পরের লাইন — এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মত মুখ
২৫) তপুকে আবার ফিরে পাবো, একথা ভুলেও ভাবিনি কোন দিন — জহির রায়হানের একুশের গল্পের উক্তি
২৬) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে
২৭) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – মৃত্যু ক্ষুধা
২৮) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের পারিবারিক পদবি – বন্দোপাধ্যায়
২৯) সুকান্ত ভট্টাচার্য মৃত্যুবরন করেন – ২১ বছরে
৩০) রবীন্দ্রনাথের জন্ম – ২৫ বৈশাখ,১২৬৮ বাংলা
৩১) জীবন থেকে নেয়া, স্টপ জেনোসাইড, লেট দেয়ার বি লাইট – জহির রায়হানের রচনা
৩২) মহাশশান মহাকাব্য – কায়কোবাদ রচনা করেন
৩৩) সনেট এর পংক্তি – ১৪ টি
৩৪) বাংলা কাব্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) পদ্মা নদীর মাঝি যার লেখা – মানিক বন্দোপাধ্যায়
৩৬) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কাব্য গ্রন্থ নয় – নৌকাডুবি
৩৭) রাজবন্দীর জবানবন্দী কার – কাজী নজরুল ইসলাম
৩৮) গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা পরের লাইন – কূলে একা বসে আছি, নাহি ভরসা
৩৯) যা অধ্যয়ন করা হয়েছে – অধীত
৪০) যিনি বক্তৃতা দানে পটু – বাগ্মী
.............
১) কষ্টে অতিক্রম করা যায় যা – দুরাতিক্রম্য
২) The rose is a fragrant flower এর বাংলা – গোলাপ সুগন্ধি ফুল
৩) পত্রের গর্ভাংশ বলে – মূল বিষয়কে
৪) কে জানে দেশে সুদিন আসবে কিনা। বাক্যটি প্রকার করে – অনশ্চিয়তা
৫) প্রদীপ নিভে গেল। বাক্যটি – সাধারণ অতীত কালের
৬) আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা – আঃ গাফফার চৌধুরী
৭) সংশয় এর বিপরীত – প্রত্যয়
৮) আরোহন এর বিপরীত – অবরোহণ
৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ – আদিত্য
১০) জসীমউদদীন রচিত গ্রন্থ – সোজন বাদিয়ার ঘাট
১১) শুদ্ধ বাক্য – আজ কাল বানানের ব্যাপারে সব ছাত্রই অমনোযোগী
১২) শুদ্ধ বানান – আলস্য, ঘূর্ণায়মান
১৩) প্রতিশব্দ নয় – আগুন – কর, আনন্দ- দিপ্তী, বন- সরোজ
১৪) যে সত্য কথা বলে, তাকে সকলে বিশ্বাস করে এর সরল বাক্য – সত্যবাদীকে সকলে বিশ্বাস করে
১৫) সঠিক অর্থ সমূহ – হাতের পাঁচ- শেষ সম্বল, চাঁদের হাট- প্রিয়জন সমাগম, কাক নিদ্রা- অগভীর
নিদ্রা, শিরে সংক্রান্তি – আসন্ন বিপদ, একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু
১৬) দুর্দিনের যাত্রী গ্রন্থের রচয়িতা – কাজী নজরুল ইসলাম

প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সাজেশন

১৭) বিদ্রোহী কবিতাটি কোন কাব্যের – অগ্নিবীণা
১৮) আবার আসিব ফিরে ধান সিঁড়িটির তীরে কোন কবির কথা – জীবনন্দ দাশ
১৯) মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কবি – ভারত চন্দ্র
২০) হরতাল – গুজরাটি শব্দ
২১) জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি – সৈয়দ মঈনুল হোসেন
২২) সোজন বাদিয়ার ঘাট এর রচয়িতা – জসীম উদদীন
২৩) শরৎচন্দ্রের রচনা নয় – চোখের বালি
২৪) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন
২৫) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – একত্রিত
২৬) শকট শব্দের অর্থ – মাছ
২৭) শেষ লেখা কি জাতীয় রচনা – কাব্য
২৮) যে বিষয়ে কোন বিবাদ নেই – অবিসংবাদী
২৯) কাজলা দিদি কি – যতীন্দ্রমোহন বাগচী রচিত কবিতা
৩০) নীল দর্পন নাটক প্রকাশিত হয় – ঢাকা থেকে
৩১) মেঘনাদবধ কাব্য প্রকাশিত হয় – ১৮৬১ সালে
৩২) পদ্মাবতী কার রচনা – আলাওল
৩৩) ভানুসিংহ যার ছদ্মনাম – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
৩৪) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে
৩৫) বাংলা উপসর্গ – অনা
৩৬) চন্ডীদাস যে যুগের কবি – মধ্যযুগ
৩৭) কলা দেখানো অর্থ – ফাঁকি দেয়া
৩৮) বেগম রোকেয়ার রচনা নয় – পদ্মনী
৩৯) প্রথম বাংলা পত্রিকা – দিকদর্শন
৪০) হাত চালাও মানে – তাড়াতাড়ি করা
৪১) কোন রচনার জন্য নজরুলের জেল হয় – আনন্দময়ীর আগমনে
৪২) বঙ্কিম এর বিপরীত –ঋজু
..........
১) অপোগন্ড শব্দের অর্থ – অপ্রাপ্তবয়স্ক, অপদার্থ
২) বাবা – তুর্কি শব্দ
৩) বাজারে কাটা অর্থ – বিক্রি হওয়া
৪) বীরবল ছদ্মনাম – প্রমথ চৌধুরী
৫) সওগাত শব্দের অর্থ – উপহার
৬) ব্যাঘাত এর বিশেষণ – ব্যাহত
৭) ফুলদানি শব্দের দানি- র ভাষিক পরিচয়, – শব্দপ্রত্যয়
৮) বাংলা ভাষায় সনেট প্রবর্তন করেন – মধুসূদন দত্ত
৯) বিলাসী গল্পটি – শরৎচন্দ্রের
১০) সিডর – সিংহলি ভাষার শব্দ
১১) দোহারা শব্দের অর্থ – মোটাও নয়, রোগাও নয়
১২) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – নির্ভরশীলতা
১৩) Barren শব্দরে অর্থ – ঊষর
১৪) অশুদ্ধ বানান – মরুদ্যান, আয়ত্ব
১৫) জঙ্গম শব্দের অর্থ – গতিশীল
১৬) পাঞ্জেরী কবিতাটি – ফররুখ আহমেদ এর
১৭) ক্ষুণ্নিবৃত্তি এর সন্ধিবিচ্ছেদ – ক্ষুধ+ নিবৃত্তি
১৮) বায়স শব্দের অর্থ – কাক
১৯) নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পত্রিকা – লাঙ্গল
২০) কবর নাকটটি – মুনীর চৌধুরীর
২১) বাংলা উপন্যাসের জনক – বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
২২) সন্ধি ব্যাকরণের আলোচিত হয় – ধ্বনিতত্ত্বে
২৩) রাবণের চিতা বাগধারার অর্থ – চির অশান্তি
২৪) শিখা পত্রিকা কোন সংগঠনের – মুসলিম সাহিত্য সমাজ
২৫) কমলা কান্তের দপ্তর যে শ্রেণীর রচনা – প্রবন্ধ
২৬) বিজ্ঞান শব্দের বি উপসর্গের অর্থ – বিশেষ
২৭) আমার সন্তার যেন থাকে দুধে ভাতে এই প্রার্থনা – ঈশ্বরী পাটনীর
২৮) দশে মিলে করি কাজ বাক্যে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি
২৯) নজরুল কারাবরণ করেন – আনন্দময়ীর আগমনে কবিদার জন্য
৩০) বেগম রোকেয়ার রচনা – মতিচুর, পদ্মরাগ, অবরোধবাসিনী
৩১) স্বাধীনতা হীনতায় কে বাঁচিতে চায় কার কথা – রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়
৩২) বাংলায় টি.এস এলিয়টের কবিতা প্রথম অনুবাদ করেন – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
৩৩) এ সাবানে কাপড় কাচা চলবে না এখানে সাবানে – করনে ৭মী
৩৪) জানালা শব্দটি – ফারসি শব্দ
৩৫) বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকী – দিক দর্শন
৩৬) ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতে বাংলা ভাষার উৎপত্তি – গৌড়ীয় প্রাকৃত থেকে
৩৭) বসন্তকুমারী নাটকের রচয়িতা – মীর মশাররফ হোসেন
৩৮) বাংলা সাহিত্যে ছন্দের যাদুকর – সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
৩৯) পড়েছি মোগলের সাথে খানা খেতে হবে এক সাথে। এর অর্থ – বিপদে পড়ে কাজ করা।
...................
...................
১) শুদ্ধ বানান – মুহুর্মুহু
২) যে পুরুষ বাচক শব্দের দুটি স্ত্রী বাচক শব্দ আছে – ভাই
৩) টীকা ভাষ্য বাগধারাটির অর্থ – দীর্ঘ আলোচনা
৪) পাথরে পাঁচ কিল বাগধারার অর্থ – প্রবল সৌভাগ্য
৫) বহুব্রীহি সমাস – দশানন
৬) পানির সমার্থক শব্দ – উদক
৭) কোথাও উন্নত কোথাও অবনত এককথায় – বন্ধুর
৮) যা লাফিয়ে চলে – প্লবক
৯) বিপদে মোরে রক্ষাকর এ নহে মোর প্রার্থনা – সরল বাক্য
১০) তার বয়স বাড়লেও বুদ্ধি বাড়েনি – সরল বাক্য
১১) মঙ্গল কাব্যের কয়টি অংশ থাকে – ৫টি
১২) মধুসূদন দত্ত রচিত পত্রকাব্য – বীরাঙ্গনা
১৩) রবীন্দ্রনাথ সুভাষ চন্দ্রকে উৎসর্গ করেন – তাসের দেশ
১৪) ঢাকা থেকে প্রকাশিত প্রথম গ্রন্থ – নীলদর্পন
১৫) চর্যাপদের পদগুলি টীকার মাধ্যমে ব্যাখা করেন – মুনি দত্ত
১৬) জহির রায়হানের রচনা – আরেক ফাল্গুন
১৭) নজরুল রচিত নাটক – ঝিলিমিলি
১৮) মুনির চৌধুরী রচিত কবর একটি – নাটক
১৯) পঞ্চতন্ত্র রচনা করেন – সৈয়দ মুজতবা আলী
২০) শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্য রচনা করেন – বড়ু চন্ডীদাস
২১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
২২) ঐহিক এর বিপরীত শব্দ – পারত্রিক
২৩) নাটিকা কোন অর্থে স্ত্রীবাচক শব্দ – ক্ষুদ্রার্থে
২৪) দ্বিগু সমাস – চৌরাস্তা
২৫) যার চক্ষুলজ্জা নাই – চশমখোর
২৬) যা অবশ্যই ঘটবে – অবশ্যম্ভাবী
২৭) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন
২৮) শুদ্ধ বানান – অগ্নিবীণা
২৯) ধর্মের ষাঁড় বাগধারার অর্থ – স্বার্থপর
৩০) একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু
৩১) বাংলায় স্বরবর্ণ -১১ টি
৩২) বাংলাদেশের রণসঙ্গীতের রচয়িতা – নজরুল ইসলাম
৩৩) বিষাদসিন্ধু যাঁর রচনা – মীর মশাররফ হোসেন
৩৪) চর্যাপদের কবির সংখ্যা – ২৩ জন
৩৫)সাহিত্যে যুগ সন্ধিক্ষণের কবি – ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
৩৬) চর্যাপদ আবিষ্কার করেন – হরপ্রসাদ শাস্ত্রী

Post a Comment

0 Comments