ভালো ভাবে অধ্যয়ন এবং পড়ায় মনোযোগী হবার ৫ টি টিপস


ভালো ভাবে অধ্যয়ন এবং পড়ায় মনোযোগী হবার ৫ টি টিপস

ভালো ভাবে অধ্যয়ন এবং পড়ায় মনোযোগী হবার ৫ টি টিপস

ভালো অধ্যয়ন মানে স্মার্ট অধ্যয়ন।আপনি হার্ড পড়া অধ্যয়নের পরিবর্তে স্মার্ট অধ্যয়ন করতে হবে। এবং হঠাৎ নিয়মিত ভাবে অধ্যয়ন শুরু করা সত্যিই কঠিন। তাই আমি ভাল অধ্যয়ন এবং কিভাবে মনোযোগ হবেন। এই জন্য ৫ টি টিপস শেয়ার করবো তাই সম্পুর্ণ পোস্টটি পড়ুন।
  যে বিষয়গুলো বলবো বুঝতে চেষ্টা করুন।

নাম্ভার একঃ--বেশি বেশি পানি পান করুন

পানি প্রতিদিন আপনার শরীরের তাজা এবং সতেজ রাখে। এটি বিরক্তিকরতা অতিক্রম করতে সাহায্য করবে। মাথাব্যথা এবং প্রতিরোধ করে হ্রাস করা এবং মৃৎপাত্র এবং পিছনে ব্যথা! যা সাধারণত ডিহাইড্রেশন দ্বারা সৃষ্ট হয়। অনেক জল পান একটি ভাল মেজাজ তৈরি করতে সাহায্য করে।মেজাজ ভালো থাকলে পড়তে ও ভালো লাগবে। তাই নিয়মিত বেশি বেশি পানি পান করুন। প্রতিদিন কমপক্ষে ৩/৪ লিটার পানি পান করুন।

নাম্ভার দুইঃ--ভালো ঘুম

ঘুম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির মধ্যে একটি। রাতে ভালো ভাবে ঘুম হলে, আপনি সম্পূর্ণ মনোযোগের সঙ্গে কিছুই করতে পারবেন। ভালভাবে ঘুমের অনেক বেনিফিট আছে, এটি আপনার মেমোরিতে পড়া ধারন করতে  সাহায্য করে, এটি বিষণ্নতা পরিষ্কার করে। তাই প্রতিদিন ঘুমোতে হবে না। ভালো ঘুন না হলে কোন কিছু ভালো লাগভে না।প্রতিদিন কম পক্ষে ৬ থেকে ৮ ঘন্টা ঘুমাতে হবে।

নাম্ভার তিন-মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না।

প্রতিদিব পড়ার টাইমে ফোন কাছে রাখতে পারবেন না।যতক্ষন পড়বেন ফোনের দিকে যাতে মনোযোগ না যায় তাই ফোন দূরে রাখুন। পড়ার টেবিলে বসার ৩০ মিনিট আগে সকল প্রকার চাটিং অফ করতে হবে। না হলে মনোযোগ পড়ার না বসে চাটিং করতে মন চাইবে।
ওয়াইফাই অফ রাখুন। অনলাইন থেকে নিজেকে দূরে রাখুন।অনলাইন আপনার জিবন নয়। জিবনে কিছু করতে হলে আপনাকে অবশ্যই Sacrifice করতে হবে।

নাম্ভার চারঃ-আপনার পড়ার স্টাইল জানুন এবং বুঝুন।

কিছু ছাত্র চুপচাপ অধ্যয়ন করতে ভালবাসেন, এবং এটা তাদের জন্য কাজ করে। এবং কিছু জোরে পড়াশোনা করতে ভালবাসে, এটি তাদের দৃঢ়ভাবে মনে রাখতে সাহায্য করে। নিজেকে বুঝতে, যা স্টাডিতে আপনাকে উপকৃত করবে।

নাম্ভার পাচঁঃ-শুধু মুখস্ত নয় চাপ্টা বুঝার চেষ্টা করুন।

শুধু পড়বেন না। অনেকে না বুঝে শুধু মুখস্ত করার চেস্টা করে।এটা ছাত্রদের কমন একটু সমস্যা। মুখস্ত করার চাইতে বুঝার চেস্টা করুন। মুখস্ত বেশি দিন থাকে না কিন্তু একবার বুঝে গেলে সারা জীবন মনে থাকবে। বুঝার চেস্টা করুন চাপ্টায় কি বলা হয়েছে মূলত লেখক কি বুঝাতে চেয়েছেন।এটা সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। তাহলে অটোমেটিক মেমোরিতে ডুকে যাবে।

উপসংহারঃ-আসা করি এই ৫ টি টিপস আপনাকে ভালো ভাবে অধ্যয়ন ও পড়ার মনোযোগী হতে সাহায্য করবে।

Post a Comment

0 Comments