একাদশ শ্রেনীতে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া যেভাবে সম্পন্ন হবে | একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির ফলাফল ও পরবর্তী সকল তথ্য

একাদশ শ্রেণীতে কাঙ্ক্ষিত কলেজে সুযোগ পাওনি তাদের ভর্তির মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া যেভাবে সম্পন্ন হবে

একাদশ শ্রেনীতে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া যেভাবে সম্পন্ন হবে | একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির ফলাফল ও পরবর্তী সকল তথ্য

মোট ৩ (তিন) টি পর্যায়ে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির ফলাফল প্রক্রিয়াকরণ করা হবে এবং প্রাথমিক নিশ্চায়ন সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ২(দুই) বার স্বয়ংক্রিয়ভাবে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া চালনা করা হবে।
প্রতি পর্যায়ে পছন্দক্রমানুযায়ী অটোমাইগ্রেশন হবে এবং মাইগ্রেশন সর্বদাই পছন্দক্রমানুসারে উপরের দিকে যাবে। মাইগ্রেশন সংক্রান্ত বোর্ড কর্তৃক প্রকাশিত নির্দেশনা নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ
ভর্তির ফলাফল প্রক্রিয়াকরণ , প্রকাশ এবং মাইগ্রেনঃ- 
মােট ৩ ( তিন ) টি পর্যায়ে ফলাফল প্রক্রিয়াকরণ করা হবে । প্রাথমিক নিশ্চায়ন সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ২ ( দুই ) বার স্বয়ংক্রিয়ভাবে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া চালনা করা হবে অর্থাৎ প্রাথমিক নিশ্চায়নের পরও সর্বোচ্চ ২ ( দুই ) বার একজন শিক্ষার্থীর কলেজ নির্বাচন পরিবর্তন হতে পারে । প্রতি পর্যায়ে পছন্দক্রমানুযায়ী অটোমাইগ্রেশন হবে এবং মাইগ্রেশন সর্বদাই পছন্দক্রমানুসারে উপরের দিকে যাবে । 
একাদশ শ্রেনীতে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া যেভাবে সম্পন্ন হবে | একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির ফলাফল ও পরবর্তী সকল তথ্য
★একজন শিক্ষার্থী তার আবেদনের সময় দেয়া কলেজ পছন্দক্রম ও এসএসসি / সমমান পরীক্ষার ফলাফল , কোটা ইত্যাদির ভিত্তিতে শুধুমাত্র ১টি কলেজেই সিলেকশন পাবে । 
★নির্বাচিত শিক্ষার্থী নিজেই অনলাইনে বাের্ডের রেজিস্ট্রেশন ও অন্যান্য ফি বাবদ ১৯৫ / - টাকা জমা দিয়ে প্রাথমিক ভর্তি নিশ্চায়ন করবেন । উল্লেখ্য যে , প্রত্যেক নির্বাচিত শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ১৯৫ / - টাকা জমা দিয়ে ভর্তি নিশ্চায়ন করতে হবে । অন্যথায় শিক্ষার্থীর মনােনয়ন ও আবেদন বাতিল হবে । এমন শিক্ষার্থী ইচ্ছা করলে পরবর্তী পর্যায়ের জন্য আবেদন ফি জমা দিয়ে নতুন আবেদন করতে পারবে । 
★যে সকল শিক্ষার্থী আবেদনকৃত কোন কলেজেই সিলেকশন পাবে না তারা পুনরায় আবেদন ফি ব্যতীত এবং যারা ইতিপূর্বে কোন কলেজেই আবেদন করে নাই তারা আবেদন ফি জমা সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবে । ফলাফল প্রক্রিয়াকরণের পর নির্দিষ্ট তারিখে শিক্ষার্থীদের SMS - এর মাধ্যমে ফলাফল জানানাে হবে এবং একই সাথে SMS - এ একটি গােপনীয় Security Code প্রদান করা হবে । এই Security Code টি চুড়ান্ত ভর্তি নিশ্চায়নের জন্য সংরক্ষণ করতে হবে । তাছাড়াও শিক্ষার্থীরা ভর্তির ওয়েবসাইট www.xiclassadmission.gov.bd থেকে ভর্তির বিস্তারিত ফলাফল জানতে পারবে ।
একাদশ শ্রেনীতে মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া যেভাবে সম্পন্ন হবে | একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির ফলাফল ও পরবর্তী সকল তথ্য
পছন্দক্রম অনুযায়ী ১ম মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশঃ ২১ জুন
★পছন্দক্রম অনুযায়ী ২য় মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশঃ ২৫ জুন

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে সরকারি-বেসরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির ফলাফল ০৯ জুন প্রকাশ করা হয়েছে। নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ১৮ জুন তারিখের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন ফি ১৯৫/= টাকা (Teletalk /bKash/Surecash/Grameenphone এর মাধ্যমে) জমা দিয়ে ভর্তির প্রাথমিক নিশ্চায়ন করতে হবে। নিশ্চায়ন না করলে সিলেকশন ও আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে।
ফলাফল দেখার উপায়ঃ
  • অনলাইনে রোল, বোর্ড, পাসের সন ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে ফলাফল দেখতে পারবে।
  • আবেদনের সময় প্রদত্ত নম্বরে এসএমএস করেও ফলাফল জানিয়ে দেওয়া হবে।
প্রকাশ হওয়ার পর উক্ত ফলাফল শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেখতে পারবেন।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ফলাফল এবং ফলাফল পরবর্তী প্রয়োজনীয় তথ্য

 ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি সংক্রান্ত পরিবর্তী কার্যক্রম

ভর্তি সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সময়সীমাঃ
১ম মেধা তালিকার ফলাফল প্রকাশঃ ০৯ জুন
শিক্ষার্থীর Selection নিশ্চয়নঃ ১১ থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত
২য় পর্যায়ের আবেদনের সময়সীমাঃ ১৯ থেকে ২০ জুন পর্যন্ত (যেসকল শিক্ষার্থী ইতিপূর্বে ভর্তির জন্য কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নির্বাচিত (Selected) হয়নি –তারা কোন প্রকার ফি প্রদান ছাড়াই তাদের আবেদন update (নতুন কলেজ সংযোজন/বিয়োজন) করতে পারবে। যারা ইতিপূর্বে ভর্তির জন্য আবেদন করেনি অথবা ভর্তির জন্য নির্বাচিত (Selected) হয়েও ভর্তি নিশ্চায়ন করেনি –তারা আবেদন ফি ১৫০ টাকা (Teletalk /bKash/Surecash/Grameenphone এর মাধ্যমে) জমা দিয়ে আবেদন করতে পারবে এবং যারা পূর্বে আবেদন ফি জমা দিয়েছে কিন্তু আবেদন করেনি, তারা ও আবেদন করতে পারবে।)
ভর্তির আবেদন , ফল প্রকাশ , ভর্তি ও ক্লাস শুরু

কলেজ / সমমানের প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনঃ

সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বাের্ডের পূর্বানুমতি ছাড়া একাদশ শ্রেণিতে ভর্তিকৃত কোন ছাত্র / ছাত্রীর ছাড়পত্র ইস্যু করা যাবে না। কিংবা বাের্ডের পূর্বানুমতি ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ইস্যুকৃত ছাড়পত্রের বরাতে ভর্তি করা যাবে না । তবে শুধুমাত্র সরকারি / আধাসরকারি / স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের চাকুরিজীবী পিতা বা মাতার বদলিজনিত কারণে কোন ছাত্র / ছাত্রীর ছাড়পত্র ইস্যু করতে বা ভর্তি করতে বাের্ডের পূর্বানুমতি নেয়ার প্রয়ােজন হবে না । এরূপ ক্ষেত্রে বদলিকৃত কর্মকর্তা / কর্মচারির বদলির আদেশপত্র প্রদর্শন করে প্রতিষ্ঠান হতে ছাড়পত্র নেয়া যাবে এবং নতুন কর্মস্থলে যােগদানপত্র দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট চাকুরিজীবীর সন্তানকে বদলিকৃত কর্মস্থলে উপযুক্ত কোন প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করা যাবে । এক্ষেত্রে কলেজ / সমমানের প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে এ ধরনের ভর্তিকৃত ছাত্র / ছাত্রী ভর্তির ১৫ ( পনের ) দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন ফিসহ প্রয়ােজনীয় কাগজ - পত্র সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বাের্ডে জমা দিতে হবে ।

কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কোন অবস্থাতেই সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান হতে এস . এস . সি . বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কোন শিক্ষার্থীর মূল একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট উক্ত শিক্ষার্থী বা তার অভিভাবক ব্যতীত অন্য কোন ব্যক্তি বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হস্তান্তর করা যাবে না বা অন্য কোন অজুহাতে কোন শিক্ষার্থীর একাডেমিক ট্যান্সক্রিপ্ট আটক রাখা যাবে না ।
পছন্দক্রম অনুযায়ী ২য় মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশঃ ২৫ জুন
পছন্দক্রম অনুযায়ী ২য় মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশঃ ২৫ জুন

Post a Comment

0 Comments