তীব্র জ্বর নিয়ে ভর্তি হওয়া নওগাঁর রানীনগর উপজেলার এক যুবকের মৃত্যু

তীব্র জ্বর নিয়ে ভর্তি হওয়া নওগাঁর রানীনগর উপজেলার এক যুবকের মৃত্যু

তীব্র জ্বর নিয়ে ভর্তি হওয়া নওগাঁর রানীনগর উপজেলার এক যুবকের মৃত্যু

★রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তীব্র জ্বর নিয়ে ভর্তি হওয়া নওগাঁর রানীনগর উপজেলার এক যুবক মারা গেছেন। গতকাল শনিবার রাত আটটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
★তবে হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলছেন, মস্তিষ্কে সংক্রমণের কারণে ওই যুবকের (২৯) মৃত্যু হয়েছে। পরীক্ষা না হওয়ার কারণে ওই রোগী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন কি না, তা জানা যায়নি। তাঁর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ওই যুবকের দাফনের ব্যাপারেও তাঁদের বিশেষ কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

★এ বিষয়ে নওগাঁর সিভিল সার্জন আ ম আখতারুজ্জামান জানান, ওই রোগীর বাবার দেওয়া তথ্যমতে, তাঁর ছেলে ঢাকায় ছিলেন। তাঁর আট দিন ধরে জ্বর ছিল। গত শুক্রবার বাড়িতে এলে তাঁকে রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখান থেকে তাঁকে গতকাল নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ সময় রোগীর শরীরে অতিমাত্রায় জ্বর ছিল। তাঁর ঘাড় শক্ত ছিল। রোগী অচেতন ছিলেন। যেহেতু নওগাঁয় করোনাভাইরাস পরীক্ষার কোনো ব্যবস্থা নেই এবং রোগীর অবস্থাও খারাপ ছিল, সে জন্য তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

★এ বিষয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস প্রথম আলোকে বলেন, গত শনিবার বেলা তিনটায় উচ্চমাত্রায় জ্বর ও অচেতন অবস্থায় ওই রোগীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত আটটার দিকে রোগীটি মারা যান। তিনি দাবি করেন, ওই যুবক মস্তিষ্কের সংক্রমণের কারণে মারা গেছেন। তাঁর করোনাভাইরাস ছিল কি না, তা পরীক্ষা করা হয়নি। যেহেতু করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়নি, তাই তাঁর লাশ স্বাভাবিকভাবেই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
★করোনাভাইরাস পরীক্ষা করার জন্য ওই যুবকের নমুনা সংগ্রহ না করার কারণ জানতে চাইলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস প্রথম মিডিয়াকে বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই যুবকের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কোনো লক্ষণ ছিল না বলে ঘোষণা দিয়েছে। এ কারণে ওই যুবকের নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।


Post a comment

0 Comments