সফল হতে হলে ত্যাগ করুন | ত্যাগ মানে কি আসুন জেনে নেই

সফল হতে হলে ত্যাগ করুন | ত্যাগ মানে কি আসুন জেনে নেই

সফল হতে হলে ত্যাগ করুন | ত্যাগ মানে কি আসুন জেনে নেই
ত্যাগ মানে কি?

হেলো বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন?আসা করি অনেক ভালো আছেন। আপনাদের দোয়ায় আমি অনেক ভালো আছি।
আজ আমি আপনাদের যা বলবো এটি পড়ার সময় অন্য জায়গা থেকে মনকে সরিয়ে আমার এই Article এর দিকে মনোযোগ দিন।

বন্ধুরা সব সময় একটি কথা মনে রাখবেন জিবনে আপনার যাই সপ্ন আছে যেই লক্ষ আছে সেটি আপনার ত্যাগ ছাড়া সম্ভব নয়।

অনেক ত্যাগ মানে কি বুঝে না

নেকে মনে করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে কাজ করাই হলো ত্যাগ করা।মনে করুন আপনে বাইক কিনতে পারেন কিন্তু কিনছেন না এটি হলো ত্যাগ। এটি ও একটি ত্যাগ কিন্তু এখন যে ত্যাগের কথা বলছি এটি আপনার কেরিয়ার গড়ার ত্যাগ।

আপনি পৃথিবীর বড় বড় ধনী ব্যক্তি খেলোয়ার যে কারো জীবন দেখতে পারেন আপনি উনার জিবনে ত্যাগ দেখতে পাবেন।প্রতিটি মানুষ জিবনে বড় কিছু করতে চায়।
অনেক ধনী হতে চায়।সমাজে নাম করতে চায়।
কিন্তু এই সমস্ত কিছু করার জন্য একটি জিনিস সবাই করতে পারে না। সেটি হলো ত্যাগ।
নিজের স্বপ্ন পুরনের জন্য যদি আপনাকে সকালে উঠছেন, আপনি উঠছেন এটি হলো ত্যাগ।
আপনাকে আপনার বাড়ি আপনার শহর আপনার দেশে ছেরে দুরে যেতে হবে এটি হলো ত্যাগ। Facebookwhatsapp করা বন্ধ করতে হবে আপনি তাই করলেন এটি হলো ত্যাগ।বন্ধুরা সবাই পার্ঠি করছে আপনি পার্ঠিতে না গিয়ে নিজের কাজ করছেন এটি হলো ত্যাগ।
প্রয়োজনের নিজের বন্ধু বান্ধব বা gf/bf কে ছেরে দেওয়া এটি হলো ত্যাগ।আসলে ১৮ থেকে ২৫ বছর হলো মানুষের সব চাইতে রুমান্টিক সময়।আমি জানি আমাদের এইসব কোথায় নস্ট হয়।এই সময় আমাদের অনেক বন্ধু বান্ধব থাকে।এখন যদি আপনি Social সাইটে কারো উত্তর না দেন কারো কিছু যায় আসবে না।

কিন্তু ১ বছর ২ বছর ৩ বছর পর আপনি কোথায় থাকবেন সেটি ঠিক হবে আপনি এখন কি করছেন তার দ্বারা।
কারন এখন আপনি যতটা ত্যাগ করবেন কিছুদিন পর ততটাই সুখের জীবন আপনি পাবেন।বন্ধুরা আপনি কি জানেন আমাদের ৯৯% কাজের উপর আমাদের কন্ট্রোল থাকে।জিবনে যাই করতেন  চান, যাই পেতে চান।
সেটি যদি আপনি না পান।বা নাই করতে পারেন।তাহলে প্লিজ কোন অজুহাত দিবেন না।যে সমাজ ভালো ছিলো না, সরকার ভালো ছিলো না।আমি গ্রামে থাকতাম,আমার মা বাবা ভালো ছিলো না।এই রকম আরো অনেক কিছু।

আপনারা পড়তেছেন  Blognet24.com এ ত্যাগ মানে কি 

শুধুমাত্র আপনি মনোযোগ দিন আপনার লক্ষের দিকে ভাবুন কেন আপনি এটা করতে চান।কখনো নিজের প্রতি বিশ্বাস হারাবেন না।কারন আপনি যেখানে থাকেন যেই অবস্তায় থাকেন।আপনি যা চান তাই পেতে পারেন।বিশ্বাস হলো এমন একটি জিনিষ যা অসম্ভবকে সম্ভব করতে পারে।
জীবন মানে হলো আপনি বার বার হেরে গিয়ে কতবার উঠে দাড়াচ্ছেন সেটা।নিজের প্রতি একটি রাগ তৈরি করুন।যে আপনি কেন পারছেন না।রাগ দেখান নিজের কাজের কেত্রে। প্রতিক্ষা করুন যে আমি এটি করবোই।
যতই সমস্যা থাক।আপনার কি এমন সপ্ন আছে যা সত্যি হবে না।সত্যি হবে আপনি ট্রাই তো করুন।এই বয়সে মাস্তি কম করে চিন্তা বেশি করুন।বাকি সারাটি জীবন চিন্তা কম করে মাস্তি বেশি করবেন।আজি সিদ্ধান্ত নিন আপনি আপনার সপ্ন পুরন করতে আপনাকে যা কিছু ত্যাগ করতে হবে।আপনি তাই করবেন।

কারন আপনি স্বিকার করেন বা নাই করেন,জিবন মানেই হলো ত্যাগ পরিশ্রম। আর মৃত্যু হলো একমাত্র বিশ্রাম।
তাই জিবনে কিছু করতে হলে আপনাকে আপনার অনেক কিছু ত্যাগ করতে হবে।
আপনি এখন যদি ত্যাগ করেন তাহলে আগামী দিন ঠিক সেই রকম হবে যার সপ্ন আপনি দেখেন।

তো বন্ধুরা আজকের Article টি কেমন লাগলো কমেন্ট করে বলুন।আর আমাদের সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন।
সবাই ভালো থাকুন,আল্লাহ হাফিজ।

Post a Comment

0 Comments