সকল পরীক্ষাদের উদ্দেশ্যে সতর্কতামুলক কিছু টিপস

সকল পরীক্ষাদের উদ্দেশ্যে সতর্কতামুলক ৭ টি টিপস

১. সময় জ্ঞান:

নিজেকে এম্বুলেন্স ভেবে বাসা থেকে বের হবেন না। কেন্দ্রে কমপক্ষে ১ ঘন্টা আগে চলে আসবেন। যেহেতু ঐ দিন অনেক ছাত্রছাত্রীদের ই পরীক্ষা, সেহেতু রাস্তায় অনেক জ্যাম থাকতে পারে। সো সেটা মাথায় রেখে সময় হাতে নিয়ে বাসা থেকে বের হবেন।

২. প্রয়োজনীয় কাগজ & জিনিসপত্র:

 তাড়াহুড়ো করতে যেয়ে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র ফেলে আসবেন না। অন্যথায়, কিন্তু - চাকরি থাকবে না।
এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজ যেমন, রেজিস্ট্রেশন কার্ড, প্রবেশ প্রত্র, ক্যাল্কুলেটর, ভাল কলম ইত্যাদি আগের দিন রাতে গুছিয়ে রাখবেন। আর রেজি কার্ড & প্রবেশ প্রত্রের ফটোকপি করে বাসায় রেখে দিবেন।

৩. তথ্য পূরণ & বৃত্ত ভরাট: 

ভাবিয়া বৃত্ত করিও ভরাট, করিয়া ভাবিও না।
একটি ভুল হতে পারে সারা জীবনের কান্না।
আপনি যদি আপনার নিজের তথ্যই ভুল করেন, তাহলে আপনার খাতা বাতিল হয়ে যেতে পারে। বৃত্ত ভরাটের সময় পেনসিল বা জেল পেন কোন ভাবেই ব্যবহার করবে না। কালো বলপেন্ট দিয়ে ভরাট করতে হবে। আর যদি ভুল করেও ফেলেন, গার্ড টিচার কে জানাবেন।

৪. সম্পূর্ণ উত্তর করা:

কোন ভাবেই উত্তর না করে আসা যাবে না। তুমি যদি না ও পারো তবু ও উত্তর করে আসবে। পাইলে ও পাইতে পারেন ২ / ১ মার্ক, যদি না পড়ে।
এজন্য প্রতিটি প্রশ্নের জন্য সময় ভাগ করে নিবে।

৫. খাতা উপস্থাপন: 

খুব সুন্দর খাতাকে উপস্থাপন মানে এক কথায় মেকাপ করতে হবে। প্রয়োজনে বিশেষ পয়েন্টে নিল কালি ব্যবহার করতে পারো।

৬. অতিরিক্ত কাগজ: 

ফুটবল খেলায় অতিরিক্ত যে সময় দেয়া হয়, সেটাকে লস টাইম বলে, আর এক্সাম হলে যে অতিরিক্ত খাতা দেয়া হয় ওটাকে লুজ শিট বলে। উভয় ই গুরুত্বপূর্ণ।
এক্ষেত্রে দেখা যায়, অনেকেই অতিরিক্ত কাগজ নেয়, কিন্ত উপরের ওএম আর সীটে ফিল আপ করতে ভুলে যায়। এ রকম ভুল করা যাবে না।

৭. আত্মবি

বিয়ে & পরীক্ষা উভয় ক্ষেত্রেই যদি আত্মবিশ্বাস না থাকে ভাল ফলাফল কোন ভাবেই আসা করতে পারবেন না। সুতরাং নিজেকে বিশ্বাস করুন, নিজের মেধাকে বিশ্বাস করুন, আপনি অবশ্যই ভাল করবেন। এমন কি ডানে বামে তাকালে ও আত্মবিশ্বাসের সহিত তাকান। ধরা পড়লে আমি দায়ি নয়।
পরীক্ষা দিয়ে কি হবে, একদিন তো মরেই যাব। এইসব কথা বাদ দিয়ে মোবাইল চার্জ দিয়ে পড়তে বসুন। সেই সাথে কমেন্ট করুন আর আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন।

Post a Comment

0 Comments