অতীতকে ভূলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার উপায়

অতীতকে ভূলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার উপায় 

অতীতকে ভূলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার উপায়
একবার একটা গ্রামের রাস্তা দিয়ে দুজন সন্যাসি যাচ্ছিলেন।যেতে যেতে তারা দেখলে রাস্তায় এক জায়গায় বৃষ্টি হবার কারনে অনেক জল কাদা রয়েছে।
আর ঐ জল কাদার পাশে সুন্দর একটা মেয়ে দারিয় বলতেছে কেন যে এই রাস্তা দিয়ে এলাম এখন তো আমার সব কিছু নোংরা হয়ে যাবে।মেয়েটিকে দেখে প্রথম সন্যাসি চুপচাপ তার পাশ কাটিয়ে চলে গেলো। কিন্তু ২য় সন্যাসী মেয়েটিকে কোলে তুলে জল কাদা থেকে ভাল রাস্তায় নামিয়ে দিলো।নামিয়ে দেওয়ার পর মেয়েটি সন্যাসিকে ধন্যবাদ তো বললই না উলটে আরো বললো একজন সন্যাসি হয়ে একজন যুবতী মেয়েকে আপনি কোলে তুলে নিলেন কে জানে বাবা কেমন সন্যাসি। এই কথা বলে মেয়েটি সেখান থেকে চলে গেলো।এর পর দুজন সন্যাসি তাদের গ্রামের পথ ধরে তাদের আশ্রমের দিকে হাঠতে শুরু করলো।এবার তারা আরো কিছুক্ষন হাঠার পর যখন তারা  প্রায় আশ্রমের কাছে পৌছে গেছে তখন প্রথম সন্যাসি যে মেয়েটির পাশ পাঠিয়ে চলে গেছিলো সে ২য় সন্যাসীকে বলল, মেয়েটির ব্যবহার কি বাঝে ছিলো তাই না অর কথাগুলো শুনে এখন ও আমার কস্ট হচ্ছে আপনার জন্য।আপনার কি কস্ট হচ্ছে না।২য় সন্যাসী প্রথম সন্যাসীকে বলল আমি তো ঘন্টা খানিক আগে মেয়েটিকে নামিয়ে দিয়েছি তুমি এখন ও মেয়েটিকে তোমার সাথে বয়ে নিয়ে যাচ্ছ সে জন্য তোমার কস্ট হচ্ছে।

আপনার সাথে এই রকম কতবার হয়েছে কেউ আপনাকে খারাপ কথা বলেছে বা খারাপ কিছু একটা আপনার সাথে ঘটে গেছে যেটা একেবারে আপনার কাছে unaccepted ছিলো আর আপনি সেই ঘটনাকে দিনের পর দিন মাসের পর মাস বা এখন ও ভূলতে পারেন নি।যদি প্রায় আপনার সাথে এমন হয় তাহলে আজকের এই টপিকটি আপনার জন্য সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।
কারন আজ এই টপিকে আমরা কি করে অতিতের বাঝে কোন সৃতিকে কি করে পিচু ছারানো সম্ভব সেটারই একটা সহজ এবং Practical উপায় খুজে বার করবো।
তো চলুন শুরু করা যাক।

কুকুর আমাদের যখন তারা করে আমরা অনেকে ভয় পেয়ে পালিয়ে যাই।যারা কারনে কুকুর ও আমাদের পিচনে ধাওয়া করে।আপনি যদি সাহস করে কুকুরকে একটা ধমক দেন তাহলে সে আর আপনাকে ধাওয়া করবে না।

অতিত কালের অপর নাম ভূত কাল।আর অর্থ অস্তিত্ব নেই।তাই এই ভূত কালের প্রকৃত কোন অস্তিত্ব নেই।এর অস্তিত্ব শুধুমাত্র আপনার আমার মনের মধ্যে।শুধু অতীত না ভবিষ্যতের ও কোন অস্তিত্ব নেই। এই গুলো শুধুমাত্র আপনার আমার মনের মধ্যে।যার অস্তিত্ব আছে যেটা আপনি বদলাতে পারবেন যা আপনার কন্টোলে আছে সেটা হলো বর্তমান।

তাহলে অতীত আর ভবিষ্যতের কাজ কি?

এই দুটোকে আমরা ব্যবহার করবো জাস্ট শুধু Information Collect করার জন্য।যাতে আমরা বর্তমানটাকে সুন্দর করতে পারি।বর্তমানে কিছু পজিটিভ করতে পারি সেই জন্য।

আমরা কখন ট্রাপে ফাসি জানেন যখনি অতীত বা ভবিষ্যতে কোন কিছু বদলাতে চেষ্টা করি।যেমন কোন এক্সিডেন্ট হবার পর আমরা আপসোস করতে থাকি ইস কেন যে ঐ জায়গায় গেলাম, বা কোন রিলেশন ও ধোকা খেলে ভাবি কেন যে ই বিশ্বাসঘাতককে বিশ্বাস করলাম।মানে অতীতকে বদলানোর ইচ্ছা।যেটা কোন দিন সম্ভব না যেখানে উচিত কি করা জাস্ট ৩ টা স্টেপ।
accept, Learn -moveon

সবার প্রথমে এটা accept করা যে ঘটনাটা ঘটে গেছে এখন আমি মরে গেলেও এটা আর বদলাবে না।অন্য কিছু হলো ভালো হতো এটা ভেবে তো আপসোস করার কোন মানে হয় না।কারন অন্য কিছু হবার তো আর জায়গায়ই নেই যা হবার তো হয়েই গেছে।সেটা হয়েছে সেটাকে accept করতে হবে।

টেক্সট দেখতে হবে এখান থেকে আমি কি শিখতে পারি।যাতে বর্তমানটাকে আমি ভালো করতে পারি।রাস্তায় মধ্যে ফোন টিপানোর কারনে এক্সিডেন্ট হয়েছে তাহলে ভবিষ্যতে আর রাস্তায় ফোন টিপাবেন না।এই রকম নেগেটিভ টাকে ছেরে এখান থেকে কি শিখলে যেটা ভাবো আর Moveon করো।

কিন্তু আমাদের মনে পজিটিভটা থেকে নেগেটিভটা বেশি still হয়ে থাকে। আমাদের সাথে সারাদিনে কি কি ভালো হয়েছে সে গুলো মনে থাকে না কিন্তু কিছু খারাপ হলে সেটা যেনো মাথা থেকে আর বের হতে চায় না।তো এর সমাধান কি। আমদের মাইন্ড এর ভিতরে আমরা যে বিষয় নিয়ে সব সময় ভাবি সেটাই আমাদের মাইন্ড এ সব সময় আসে।এই জন্য খারাপ কিছু হলে আমরা যেনো এটা মন থেকে দূর করতে পারি না।
যখনি আপনার মাইন্ডে এই খারাপ ঘটনা আসবে তখন সেই আগে ৩ টা স্টেপ মানতে হবে।
accept, Learn,and move অন

কেউ একজন বলেছেন সেটা ভূলে যান যেটা আপনাকে কস্ট দিয়েছে।কিন্তু কখন সেটা ভুলবেন না সেটা আপনাকে যা শিখিয়েছে।

Post a Comment

0 Comments